You are here
Home > Suggesation >

চাকরির ভাইভাঃ ইন্টারভিউ বোর্ডে যে প্রশ্নগুলো আপনাকে করা হতে পারে

চাকরির ভাইভাঃ ইন্টার্ভিউ বোর্ডে যে প্রশ্নগুলো আপনাকে করা হতে পারে

 

 
 

 

ইন্টারভিউ খুব চাপের হতে পারেকিন্তু
এটি অতিক্রম করার সবচেয়ে ভালো উপায় হলো প্রস্তুত
 থাকুন এবং নিয়োগকর্তা কি সন্ধান করছেন তা জানুনঃ

যেসব প্রার্থীর দক্ষতা এবং অভিজ্ঞতাগুলো
কোম্পানিটির চাহিদার সাথে প্রাসঙ্গিক হবে

প্রার্থী যারা আত্মবিশ্বাসী এবং কোম্পানির
প্রতি অবদান রাখার ক্ষমতা থাকবে

প্রার্থী যারা অতীত অভিজ্ঞতাগুলো উপর
আলোচনা করতে পারে এবং এমন
 কয়েকটি
বিশেষ উদাহরণ তুলে ধরবে যেগুলো তাদের দক্ষতা ও অর্জিত সাফল্য
 প্রকাশ করবে

 
 

পূর্বেই  প্রস্তুতি গ্রহণ করুনঃ

 

ইন্টারভিউ এ চাপ কমানোর আরেকটি উপায় হলো পূর্বেই প্রস্তুত থাকা। আপনার
জীবনবৃত্তান্ত
 পর্যালোচনা করুন এবং
এটি নিশ্চিত করুন যে
আপনি আপনার দক্ষতাঅভিজ্ঞতালক্ষ্যআগ্রহসাফল্য এবং উদ্দেশ্য
সম্বন্ধে জানেন
। আপনাকে মৌখিক অনেক প্রশ্ন
জিজ্ঞাসা করা হবে এবং কিছু প্রাসঙ্গিক উদাহরণ উল্লেখ করার প্রয়োজন
 হবেসুতরাং নিজেকে সংক্ষিপ্ত ও পরিষ্কারভাবে উপস্থাপন করুন
একজন নিয়োগকর্তা দ্বারা জিজ্ঞাসিত সবচেয়ে প্রচলিত প্রশ্নগুলো
সম্পর্কে জ্ঞাত
 থাকুনপ্রশ্নের
উত্তর যথার্থ রাখুন
কিন্তু উত্তর কখনো
মুখস্ত করবেন না

চাকরির ভাইভাঃ ইন্টার্ভিউ বোর্ডে যে প্রশ্নগুলো আপনাকে করা হতে পারে

ইন্টারভিউ টিপ্‌সঃ

 

এখানে ইন্টারভিউ প্রক্রিয়াটি কিভাবে
মোকাবিলা করতে হয় এটির উপর কয়েকটি পরামর্শ দেওয়া আছেঃ

কোম্পানি সম্বন্ধে গবেষণাঃ প্রতিষ্ঠানপদ এবং ব্যক্তি যিঁনি আপনার বস্‌ হতে পারেন এদের সাথে পরিচিত হওয়া ভালো। আপনি
যে ধরনের চাকরি খুঁজছেন
 তার সাথে আপনার দক্ষতা
এবং অভিজ্ঞতাগুলো মিল রাখার চেষ্টা করুন

ভালো দেখানোঃ প্রথম দর্শনই দীর্ঘস্থায়ী
হয়
,
সুতরাং এটি বিবেচনায় রাখুন আপনার
আত্মবিশ্বাস এবং পেশাদারী মনোভাব প্রদর্শন করা প্রয়োজন
 পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন ও
উপযুক্ত পোশাক পরিধান করুন
কিন্তু ভারী গয়নাঅতিরিক্ত পারফিউম অথবা অত্যধিক সুগন্ধি বিশেষ কিছু ব্যবহার
করবেন না



জানার পর আপনি এটি চান কিনা এবং কাজটি
মূল্যায়ন করার সময় পাবেন
। তাই এই মুহুর্তেআপনার লক্ষ্য হলো একটি
ইতিবাচক প্রস্তাব অথবা দ্বিতীয়বার
 ইন্টারভিউ
এর আমন্ত্রণ পাওয়া


যে রকম চান চাকরিটি সে রকম হয়
আপনার পূর্ববর্তী অবদান সম্পর্কে আলোচনা করুনঃ সম্ভাব্য নিয়োগকর্তারা আপনি পূর্বের
চাকরিতে কিভাবে
 একটি বৈচিত্রতা তৈরি
করেছিলেন তা জানতে খুব আগ্রহী হয়
। একটি উপায়েআপনাকে সাক্ষাৎকারগ্রহীতাকে উপলব্ধি করানো প্রয়োজন যে আপনি
যথাযথভাবে
 কোম্পানির চাহিদা পূরণ
করেছেন

অতিরঞ্জিত কোন কিছু এড়িয়ে চলুনঃ আপনি সতর্কতার সাথে কথা বলুন এবং প্রয়োজনের অতিরিক্ত
কথা বলবেন না
 অধিকাংশ লোক যা তারা শোনে তার ২০ শতাংশ শুধু ধরে রাখতে পারে। সুতরাংআপনার বাচন
উক্তি নির্বাচন করুন
স্পষ্টভাবে কথা বলুন
এবং সঠিক পয়েন্ট তুলে
 ধরুন
ইন্টারভিউ এর কথা কল্পনা করে ভীত হবেন
নাঃ এটি শুধু একটি
 ইন্টারভিউকোন ফাঁসিকাঠ তো নয়আগেই
অভিজ্ঞতর কথা চিন্তা করুন
। আপনার বডি ল্যাংগুয়েজচক্ষু যোগাযোগশারীরিক উপস্থাপনাপ্রয়োজনীয়
জিনিস এবং
 পোশাক ইত্যাদি এর মতো
জিনিসপত্রের কথা আগেই জানার চেষ্টা করুন

যত্নসহকারে শুনুনঃ আপনি উত্তর দেওয়ার
পূর্বে কিছু সময় বিরতি নিন এটি
 নিশ্চিত
হওয়ার জন্য যে প্রশ্নকর্তা তাঁর কথা শেষ করেছেন
সরাসরি এবং সুস্পষ্টভাবে উত্তর দিন। যদি আপনি
না বুঝতে পারেন তাহলে ঐ ব্যাপারটি বোঝার
 জন্য
জিজ্ঞাসা করুন

চাকরির ভাইভাঃ ইন্টার্ভিউ বোর্ডে যে প্রশ্নগুলো আপনাকে করা হতে পারে

আপনার প্রশ্নগুলো করুনঃ এছাড়া আপনিও কোম্পানির ইন্টারভিউ নিচ্ছেন। প্রতিষ্ঠানটি
সম্পর্কে প্রশ্ন করার মাধ্যমে
 শুরু
করুন এবং কর্মে অগ্রগতি
কাজের
শর্তসমূহ(নিয়মাবলী
পরিবেশ ইত্যাদি)বিষয়ে প্রশ্ন করুন। পরিশেষে
অন্যান্য সুযোগ সুবিধা ও বেতন-ভাতা
 নির্ধারণ
করুন

গুরুত্বপূর্ণ তথ্য লিখে রাখুনঃ যাঁরা
আপনার

ইন্টারভিউ গ্রহণ করেছেন তাঁদের নাম এবং
পদবি লিখে রাখুন
। বানানের শুদ্ধতা নিশ্চিত
করুন
,
পরবর্তীতে এসব তথ্য আপনার প্রয়োজন হতে
পারে

চুপিসারে(পালিয়ে)প্রস্থান করবেন নাঃ
ইন্টারভিউ এর পর
,
মাথা নিচু করে শুধু ইন্টারভিউ স্থান ত্যাগ করবেন না। আপনি
সত্যিই চাকরিটি করতে আগ্রহী এবং আপনি
 নিয়োগ
প্রক্রিয়ার পরবর্তী ধাপে যেতে প্রস্তুত নিয়োগকর্তাকে এটি জানিয়ে
 দেওয়ার মাধ্যমে একটি ভালো প্রভাব সেখানে তৈরি করার চেষ্টা
করুন
। যদি এটি সঠিক
মনে না হয় তবে সাধারণভাবে নিয়োগ প্রক্রিয়ার পরবর্তী ধাপ সম্পর্কে
 জিজ্ঞাসা করুন

 

 

প্রচলিত প্রশ্নের উত্তর:

 

এখানে যে কোন ধরনের চাকরির সাথে
সংশ্লিষ্ট অধিকাংশ প্রশ্নের একটি তালিকা
 দেওয়া
আছে
। একজন সাক্ষাৎকারগ্রহীতা আপনি যে পদের জন্য আবেদন করেছেন তার সাথে প্রাসঙ্গিক কোন্‌ প্রশ্নগুলো জিজ্ঞাসা করতে পারেন সেটি
নোট করে রাখুন

কেমন আছেন আপনারা? আশা করি সবাই ভাল আছেন। সবার ভাল থাকার আশায় আজ আপনাদের
জন্যে ভিন্ন একটি পোস্ট শেয়ার করতে আসলাম। আর তা হল চাকরির ভাইভাঃ ইন্টার্ভিউবোর্ডে যে প্রশ্নগুলো আপনাকে করা হতে পারে
এবং এর উপর একটি সুন্দর গাইডলাইন তার সাথে আমার মূল্যবান পরামর্শ। 
   ইন্টারভিউ গ্রহণের মাধ্যমে নিয়োগকর্তারা আপনার ব্যাক্তিত্ব, আগ্রহ, লক্ষ্য এবং উদ্দেশ্য সম্পর্কে জানতে পারেন। এটার মাধ্যমে আপনি আর এক টুকরো কাগজে আপনার দক্ষতা এবং অভিজ্ঞতার একটি তালিকে হয়ে থাকবেন না। এটিই সুযোগ কিভাবে ঐ দক্ষতাসমূহ
আপনাকে পদটির জন্য উপযুক্ত প্রার্থী করে তুলেছে তা কয়েকটি বিশেষ উদাহরণ এবং
বাস্তবতার ভিত্তিতে সংক্ষিপ্ত বিবরণের মাধ্যমে ব্যাখ্যা করুন। কোম্পানি ও শিল্প
 সম্পর্কে
আপনার জ্ঞান এবং পদটির জন্য আপনার অধীর আগ্রহ প্রকাশের এটিই উত্তম
 সময়। আপনি কে তা
নিয়োগকর্তাকে জানানোর এটিই সময়
আর সেটি নিজেকেই করতে হবে

চাকরির ভাইভাঃ ইন্টার্ভিউ বোর্ডে যে প্রশ্নগুলো আপনাকে করা হতে পারে

Leave a Reply

Top